নর্থ সাইপ্রাস প্রবাসী বাংলাদেশি কল্যাণ সংসদের উদ্যোগে কর্মহীন বাংলাদেশীদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ সম্পূর্ন।

0

নর্থ সাইপ্রাস প্রবাসী বাংলাদেশি কল্যাণ সংসদের উদ্যোগে কর্মহীন বাংলাদেশীদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ সম্পূর্ন।

এম. রেদোওয়ান আহমদ সাইপ্রাস থেকেঃ সাইপ্রাস প্রবাসী বাংলাদেশি কল্যাণ সংসদের উদ্যোগে কর্মহীন বাংলাদেশিদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ নর্থ সাইপ্রাসেও আক্রমণ করেছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস।

ভাইরাসটি আক্রমণ করায় গত ১৪ মার্চ থেকে দেশটির সরকার নিত্যপ্রয়োজনীয় কিছু জিনিসপত্রের দোকান ছাড়া বাকি সব ধরণের সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্টান বন্ধ করে দিয়েছে। তাছাড়াও দেশটিতে চলছে লাগাতার লকডাউন। ঘর থেকে কেউ বেড় হতে পারছে না। ফলে দেশটিতে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশি শ্রমিক ও খেটে খাওয়া মানুষগুলো পড়েছে চররম বিপাকে। অনেকে দিনের পর দিন পার করছে না খেয়ে। এ অবস্থায় কর্মহীন ও অসহায় মানুষগুলোর পাশে ত্রাণসামগ্রী নিয়ে হাজির হয়েছেন দেশটিতে বাংলাদেশিদের গড়া “সাইপ্রাস প্রবাসী বাংলাদেশি কল্যাণ সংসদ” নামের সংগঠন।

জানা যায়, সংগঠনটির পক্ষ থেকে সাইপ্রাস প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে যারা বেশি অসুবিধায় আছেন তাদের নামের একটি তালিকা করে সেই তালিকা অনুযায়ী যার যার বাসায় গিয়ে চাল, ডাল, আলু, পেঁয়াজ, নুডলস, আটা, সয়াবিন তেল ও লবণ বিতরণ করেছেন।

ত্রাণসামগ্রী বিতরণের বিষয় জানতে সংগঠনের সভাপতি মোহাম্মদ ইসমাইল ভূইয়া, সাধারণ সম্পাদক মোঃ ফয়সাল মিয়া ও সহ-সাংগঠনিক মোঃ নাঈমুর রহমান দুর্জয়ের সাথে তাদের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, আল্লাহু রাব্বুল আল-আমীন মানুষের দূর্দিনে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর নির্দেশনা দিয়েছেন। আর সেই নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা আমাদের সাধ্যমতো কর্মহীন অসহায় মানুষগুলোকে সহায়তা করেছি।

অপর এক প্রশ্নের উত্তরে সংগঠনের সভাপতি মোহাম্মদ ইসমাইল ভূইয়া বলেন, সাইপ্রাস প্রবাসী বাংলাদেশি কল্যাণ সংসদের পক্ষ থেকে আমরা আপাতত ১০০ জন প্রবাসী বাংলাদেশিদের মাঝে ২ কেজি চাউল, ১ কেজি ডাউল, ২ কেজি আলু, ১ কেজি পেঁয়াজ, ১ কেজি নুডলস, ২ কেজি আটা, ১ কেজি সয়াবিন তৈল ও ১ কেজি লবণ করে বিতরণ করেছি।
ভবিষ্যতে আরও সহায়তা করা হবে কিনা জানতে চাইলে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ফয়সাল মিয়া জানান, সংগঠনের পক্ষ থেকে আমাদের সহায়তা কর্যক্রম চলছে এবং করোনা পরিস্থিতি অনুকূলে না আসা পর্যন্ত আমরা তা চালিয়ে যাবো।

সংগঠনের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ নাঈমুর রহমান দুর্জয় বলেন, সংগঠনের পক্ষ থেকে আমারা আমাদের সাধ্যমতো কর্মহীন মানুষদের সহযোগিতা করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। কারণ আমরা যারা প্রবাসে আছি তারা প্রত্যেকেই এখন অসহায়। কেননা, এখানে কারোর বাবা-মা, ভাই-বোন, এমনকি কোনো আত্মীয় স্বজন নেই। কাজেই আমরা সাইপ্রাস প্রবাসী বাংলাদেশি যারা আছি তারা সবাই ভাই ভাই। এ অবস্থায় আমাদের কোনো ভাই অসুবিধায় থাকলে তার খোঁজ খবর নেওয়া আমাদের সবাই কর্তব্য।

নাঈমুর রহমান দুর্জয়, এ সময় সাইপ্রাসে অবস্থানরত সকল বাংলাদেশিদের করোনা সংক্রমণ এড়াতে দেশটির সরকারি নিয়মনীতি মেনে চলাফেরা করার ও ঘরে থাকার আহ্বান জানান। একই সময় প্রিয় জন্মভূমি বাংলাদেশের সকলকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শ মতে বাংলাদেশ সরকারের নিয়মনীতি মেনে চলাও আহ্বান জানান।