ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলের পানিতে প্লাবিত সিলেট সদর উপজেলা

0
ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলের পানিতে প্লাবিত সিলেট সদর উপজেলা
ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলের পানিতে প্লাবিত সিলেট সদর উপজেলা

ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলের পানিতে প্লাবিত সিলেট সদর উপজেলা

স্টাফ রিপোর্টঃসিলেট সদর উপজেলা বন্যায় প্লাবিত ।ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে উপজেলার গুরুত্ব পূর্ন সড়কের বিভিন্ন অংশের উপর দিয়ে প্রবল বেগে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। বর্তমানে সুরমা, চেংগাই নদীতে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে।

০১ নং জালালাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় মাঠে বন্যার পানি। ছবি ক্রেডিটঃ এফ এ হৃদয়

ইতিমধ্যে শহর সাথে কয়েকটি ইউনিয়নের সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন রয়েছে এবং অন্যান্য ইউনিয়নের বাসিন্ধারা ও আশংকা রয়েছেন।স্থানীয়রা বলছেন বড় ধরনের বন্যার হয়েছে এই বছর।

বন্যার কবলে মানশিনগর গ্রামের দিনমজুরের বাড়ি ছবি ক্রেডিটঃ শফিক আহমদ

এদিকে উপজেলার ১ নং জালালাবাদ ইউনিয়নের প্রায় সবকটি গ্রামে বন্যার পানি প্রবেশ করেছে। ইউনিয়নের কয়েক হাজার মানুষ পানিবন্দি অবস্থায় রয়েছেন। পানিবন্দি এসব মানুষ বিশুদ্ধ পানির তীব্র সংকটে পড়েছে।

মেইন রাস্তার উপড়ে প্রায় ৪/৫ ফুট পানি (রায়ের গাঁও) ছবি ক্রেডিটঃমো:নাজিম /হাবিবুর

এছাড়া উপজেলার নিম্নাঞ্চলের অনেক ঘরবাড়ি, দোকানপাট বন্যায় প্লাবিত হয়েছে। এখন পর্যন্ত বন্যাকবলিত মানুষের জন্য কোনো আশ্রয় কেন্দ্র খোলা বা কোন সরকারি-বেসরকারি ত্রাণসামগ্রী বিতরণের খবর পাওয়া যায়নি।

ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলের পানিতে প্লাবিত সিলেট সদর উপজেলা
আলীনগর পালপুর মেইন রাস্তা উপড় দিয়ে পানি বয়ে যাচ্ছে। ছবি ক্রেডিটঃ মাছুম বিল্লাহ

শনিবার সুরমা নদীর পানি বিপদসীমার ১৩০ সেন্টিমিটার, উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এদিকে বন্যার মধ্যে আকস্মিক ঘূর্ণিঝড়ে উপজেলার বেশকটি ইউনিয়নে ঘরবাড়ী, দোকানপাট ও গাছপালার ব্যপক ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া গেছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মহুয়া মমতাজ জানান, বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শন করে পরিস্থিতির সার্বক্ষনিক খবরা-খবর রাখা হচ্ছে। বন্যা মোকাবেলায় সকল আশ্রয়কেন্দ্র খুলে দেওয়া হয়েছে এবং ত্রাণসামগ্রীর প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। এছাড়া ঘুর্নিঝড় কবলিত এলাকা ও বন্যাকবলিত এলাকায় তিনি পরিদর্শনে যাচ্ছেন বলে জানান।

শেয়ার করুনঃ